বাসার সবাইকে প্রতিদিন খাওয়ান – গলা ব্যথা, কাশি থেকে নিরাপদ রাখুন।

বাসার সবাইকে প্রতিদিন খাওয়ান – গলা ব্যথা, কাশি থেকে নিরাপদ রাখুন।

 

করোনা ভাইরাস কিংবা কোভিড-১৯ এর সংক্রমনে সারা পৃথিবী যখন স্থবির হয়ে গেছে, হোম কুয়ারেন্টাইনে থেকে আপনার শরীর-মনে নিশ্চই এতদিনে জ্যাম লেগে গেছে। খুব সহজেই আপনিই পারেন আপনার পরিবারের সবাইকে গলা ব্যথা, কাশি থেকে নিরাপদ রাখতে । কিভাবে ? পড়ুন তাহলে-

এই পোষ্টটি শুধু মাত্র সেইসব অলসদের জন্য যারা এক গ্লাস পানি নিজের হাতে ঢেলে খেতে পারেন না। আপনি এই দলের না হয়ে থাকলে এখনই এই পোষ্ট পড়া বাদ দিন আর যদি এই দলের একজন গর্বিত সদস্য হয়ে থাকেন তাহলে আসুন জেনে নেই কিভাবে পরিবারের বাকিদের চমকে দিতে পারি।

১। একটা পাতিল নিন যেখানে ৮/১০ কাপ পানি অনায়াসে ফুটানো যাবে। এতে পানি নিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন। চুলার আগুন জ্বালাতে ভুলবেন না। যেহেতু আপনি অলস কাজী ফার্মের মুরগী প্রকৃতির লোক তাই এটাও আমাকে বলে দিতে হচ্ছে।

২। এতে পরিমান মত আদা, দারচিনি, লবঙ্গ, এলাচ, তেজপাতা এবং কালোজিরা দিয়ে পানি ফুটাতে থাকুন ১৫ মিনিট। দেখবেন পানির কালার রঙ চায়ের মত হয়ে গেছে। আর আপনার এই মিক্স দিয়ে একটা মারাত্বক ফ্লেবার বের হচ্ছে। আদা একটু ছেঁচে দিবেন, এলাচগুলো খুলে দিবেন, দারচিনি একটু ভেঙ্গে দিবেন আর তেজপাতা একটু ছিড়ে দিবেন। আদা, কালোজিরা আর তেজপাতা চিনতে পারলেও আপনি যদি দারচিনি, লবঙ্গ, এলাচ চিনতে না পারেন একটু গুগলে সার্চ করে চেহারাটা দেখে নিতে পারেন।

আপনার রান্নাঘরে এগুলো কোথায় আছে জানা না থাকলে যে প্রতিদিন রান্না করে তার সহযোগিতা নিন, বউ এর দাবড়ানি হতে সাবধান।

৩। এবার চা ছাকুনি দিয়ে মিক্সারটা কাপে ঢেলে নিন, পরিমাণ মত চিনি দিয়ে চা চামচ দিয়ে হালকা নাড়া দিয়ে চিনিটা গুলিয়ে দিন। পরিবারে কারও ডায়াবেটিক থাকলে তার কাপে চিনি দিবেন না বরং একটু লবন দিয়ে দিতে পারেন।

৪। এবার কাপে ১টি টিব্যাগ ছেড়ে দিন। হয়ে গেল রং চা।

করোনার হোম কুয়ারেন্টাইনের যুগে এই চা প্রতিদিন সকাল-বিকাল নিজে পান করুন, পরিবারের সবাইকে দিন। আশা করা যায় এই চা আপনাকে সহ আপনার পরিবারের সবাইকে সিজনাল Flue থেকে নিরাপদ রাখবে।

সতর্কতা

চুলায় আগুন জ্বালানো থেকে গরম পানি হ্যান্ডেল করা সব কিছুই নিজ দায়িত্বে করুন। কোন প্রকার এক্সিডেন্টের জন্য লেখক দায়ি থাকবে না। এছাড়া আপনি যেহেতু অলস বাটারবন প্রকৃতির কাপ-পিরিচ সাবধানে হ্যান্ডেল করবেন।

গলা ব্যথা, কাশি থেকে নিরাপদ থাকার জন্য এই চা অব্যর্থ। ট্রাই করেই দেখুন।

করোনা ভাইরাস নিয়ে কিভাবে সুস্থ থাকা যায় সেই ব্যপারে একটা ব্লগ লিখেছি পড়ে দেখুন


Leave a Reply