প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়

একটি দেশের উন্নয়নের সবচেয়ে বড় দিক হচ্ছে সে দেশের শিক্ষা। শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। আমরা জানি, যে জাতি যত বেশি শিক্ষিত সে জাতি  তত বেশি উন্নত,সভ্য  ও অগ্রসর। ইতিমধ্যেই আমরা  সকলে এ বিষয়ে অবগত যে, বর্তমান বিশ্বে উন্নয়নশীল আটটি দেশের মধ্যে একটি হলো বাংলাদেশ। এবং এই বাংলাদেশকে ১৯৪১ সালের মধ্যে “স্মার্ট বাংলাদেশ এ রূপান্তরের রূপকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। এই রূপকল্প বাস্তবায়নের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মৌলিক দিক হচ্ছে শিক্ষা। আপনারা কি জানেন বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালগুলোর পাশাপাশি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় গুলো কিভাবে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে  অবদান রাখছে? যদি না জেনে থাকেন তবে জেনে নেন কোন দশটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়

নিঃসন্দেহে আমাদের তালিকার প্রথমে রয়েছে বাংলাদেশের অন্যতম সেরা একটি বিশেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়। হ্যাঁ বলছি নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি এর কথা। বাংলাদেশ সেরা বেসরকারি  বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে একটি হলো নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়। এটি বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। এটি NSU নামেও পরিচিত। বাংলাদেশের এ বিশ্ববিদ্যালয়টিকে  আমেরিকানরা স্বীকৃতি দিয়েছে।

১৯৯২ সালে এ বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এবং এটি বাংলাদেশের ঢাকা-১২২৯ এ অবস্থিত। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন এবং  উপাচার্য আতিকুল ইসলাম।সাম্প্রতিক তথ্য অনুযায়ী এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০০২৫ জন শিক্ষার্থীর তথ্য রয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয় চারটি অনুষদ এবং দশটি বিভাগ রয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন( ইউজিসি),ইনস্টিটিউট অফ ইঞ্জিনিয়ার, বাংলাদেশের সাথে।

 প্রতিষ্ঠিত :১৯৯২ সাল

প্রতিষ্ঠাতা :মুসলেহউদ্দিন আহমদ

মূলমন্ত্র :”উচ্চশিক্ষার উৎকর্ষ কেন্দ্র “

বিভাগ :দশটি

ঠিকানা :বসুন্ধরা, ঢাকা-১৯২৯,বাংলাদেশ

২৩.৮১৫২২২°উত্তর ৯০.৪২৫৬৫৭°পূর্ব।

টেলিফোন নাম্বার :+880-2-55668200

ফ্যাক্স নাম্বার : +880-2-55668202

ইমেইল ঠিকানা :registrar@northsouth.edu

 ওয়েবসাইট :http://www.northsouth.edu/

 ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়

ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের আরেকটি সেরা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশের সকল বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে এটির অবস্থান দ্বিতীয়। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সংক্ষিপ্ত নাম ব্র্যাক ইউ। “ব্র্যাক ব্যাংক বাংলাদেশ” এর প্রতিষ্ঠাতা ফজলে হাসান আবেদ। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি ২০০১ সালে  প্রতিষ্ঠা করেন। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান উপাচার্য সৈয়দ মাহফুজুল আজিজ (উল্লেখ্য যে, ২০১৮ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত এই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ছিলেন ভিনসেন্ট চ্যাং) ।

 এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শুরু থেকে  ২০২৩ সাল পর্যন্ত ১৬৩৭৫ জন শিক্ষার্থী স্নাতক ও স্নাতকোত্তর  ডিগ্রী অর্জন করেছে। অত্যন্ত হাই কোয়ালিফাইডার এলামনি নিয়ে গঠিত এটি। গবেষণার দিক থেকে বলা যায় বাংলাদেশের একটি টপ ক্লাস ভার্সিটি এটি। বরাবরের মতো এনএসইউ প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করে আসছে বাংলাদেশের প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় তথা ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি।

 প্রতিষ্ঠিত :২০০১ সাল

 প্রতিষ্ঠাতা :ফজলে হাসান আবেদ

 মূলমন্ত্র :উৎকর্ষের অনুপ্রেরণা

 বিভাগ :৯টি

 ঠিকানা :খ-২২৪ বীর উত্তম রফিকুল ইসলাম এভিনিউ,মেরুল, বাড্ডা, ঢাকা, বাংলাদেশ।

২৩.৭৭৩১৫৪°উত্তর ৯০.৪২৪৬৩৬°পূর্ব।

টেলিফোন নাম্বার :+880-2-9844051-4

ফ্যাক্স নাম্বার :+880-2-58810383

 ইমেইল ঠিকানা :info@bracu.ac.bd

 ওয়েবসাইট :https://www.bracu.ac.bd/

 ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়

বাংলাদেশের সেরা বেসরকারি  বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে আরেকটি বিশ্ববিদ্যালয় হল ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর মধ্যে এই বিশ্ববিদ্যালয়টির অবস্থান তৃতীয়। এ বিশ্ববিদ্যালয় সংক্ষিপ্ত নাম EWU। ১৯৯৬ সালে এ বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি আফতাবনগর,ঢাকা, বাংলাদেশে অবস্থিত। এ বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য ডঃ মোঃ শামস্-উর রহমান।

 এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ১০৪০০ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয় একটি রিসোর্স সেন্টার রয়েছে। যেটির নাম “সেন্টার  ফর রিসার্চ এন্ড ট্রেনিং (সি আর টি)। এই রিসোর্স সেন্টারটি বার্ষিক  গবেষণার ক্ষেত্রে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এ বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাথে।

 প্রতিষ্ঠিত :১৯৯৬ সাল

 প্রতিষ্ঠাতা :মোঃ ফরাসউদ্দিন

 মূলমন্ত্র :শিক্ষায় শ্রেষ্ঠত্ব

 বিভাগ :১৪ টি

 ঠিকানা :এ/২,জহুরুল ইসলাম এভিনিউ, জহুরুল ইসলাম সিটি, আফতাবনগর ঢাকা, বাংলাদেশ।

২৩.৭৬৮৬৬০°উত্তর ৯০.৪২৫২৯০°পূর্ব ।

 টেলিফোন নাম্বার : 0255046678, 09666775577, 01755587224

 ইমেইল ঠিকানা :info@ewubd.edu

 ওয়েবসাইট :http://www.ewubd.edu/

 আহসানুল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়টি হলো আহসানুল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। এটির সংক্ষিপ্ত নাম AUST। এই প্রতিষ্ঠানটি ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন দ্বারা ১৯৯৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এ বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য মোহাম্মদ ফাজলি ইলাহী। এ প্রতিষ্ঠানটি  তেজগাঁও শিল্প এলাকাতে পাঁচ বিঘা জমির উপর নির্মিত। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি ভারত উপমহাদেশে ৭৭তম সেরা বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার ক্ষেত্রে এ বিশ্ববিদ্যালয়টি সকল প্রকার সুযোগ সুবিধা প্রদান করে থাকে।

এ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৬৮৪৩ জন। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে বেশ কয়েকটি বিভাগ রয়েছে।এ বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যক্রম বাংলাদেশ সরকারের বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন কর্তৃক অনুমোদিত হয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি বড় লাইব্রেরী রয়েছে। যেখানে ২০ হাজারেরও বেশি বই রয়েছে। যে বইগুলো শিক্ষার্থীদের জ্ঞান অর্জনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

 প্রতিষ্ঠিত :১৯৯৫ সাল

প্রতিষ্ঠাতা :ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন

বিভাগ :৮টি

ঠিকানা :১৪১-১৪২,লাভ রোড, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল, ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ।

২৩.৭৬৩৮৪৫°উত্তর ৯০.৪০৬৮৮১°পূর্ব ।

টেলিফোন নাম্বার :+880-2-887022

ফ্যাক্স নাম্বার :+880-2-887041718

ইমেইল ঠিকানা :info@aust.edu

ওয়েবসাইট :http://www.aust.edu/

 ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক

বাংলাদেশের বহুল পরিচিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে একটি হলো ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক। এটি বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাতে অবস্থিত। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি ১৯৯৬ সালের ২৫ শে ফেব্রুয়ারি প্রতিষ্ঠিত হয়।এ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড.কামরুল আহসান। এ বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাথে।এ বিশ্ববিদ্যালয়ে বেশ কয়েকটি বিভাগ রয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রাথমিক কার্যক্রম শুরু হয় চার বছর মেয়াদী কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগ এবং ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগ মাধ্যমে।এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৬০০০ এর বেশি।

বর্তমানে এ বিশ্ববিদ্যালয় ইউএপি  এর বিভিন্ন প্রোগ্রাম অফার করে। স্বনামধন্য অনেক আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক ভালো সম্পর্ক রয়েছে। পড়াশোনার পাশাপাশি বিভিন্ন ক্রীড়া প্রতিযোগিতার ও আয়োজন করে থাকে এই প্রতিষ্ঠানটি। যেমন: ফুটবল ক্রিকেট,বাস্কেটবল,ভলিবল,টেনিস ইত্যাদি। এ সকল খেলাধুলার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার পাশাপাশি মাইন্ড রিফ্রেশ হয় এবং শারীরিকভাবে সুস্থও থাকে।

প্রতিষ্ঠিত :১৯৯৬ সাল

মূলমন্ত্র :উৎকর্ষ সাধনে অঙ্গীকারবদ্ধ

বিভাগ :৮টি

ঠিকানা :৭৪/এ গ্রীন রোড, ফার্মগেট, ঢাকা-১২০৫, বাংলাদেশ।

টেলিফোন নাম্বার :+880-2-58157091

ফ্যাক্স নাম্বার :+ 880-258157097

ইমেইল ঠিকানা :registrar@uap-bd.edu

 ওয়েবসাইট :http://www.uap-bd.edu/

 ইন্ডিপেন্ডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়

বাংলাদেশের প্রথম সাড়ির বেসরকারি  বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি বিশ্ববিদ্যালয় হলো ইন্ডিপেন্ডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়। এ বিশ্ববিদ্যালয়টির সংক্ষিপ্ত নাম IUB।এটি ১৯৯৩ সালে বেসরকারি আইন দ্বারা প্রতিষ্ঠিত হয়। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি আর/এ,ঢাকা, বাংলাদেশে অবস্থিত।বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য তানভীর হাসান। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে দেশের বাহির থেকেও অনেক শিক্ষার্থী আসে।

বাংলাদেশের সেরা দশটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়

যেসকল শিক্ষার্থীর জন্য ডরমেটরির ব্যবস্থাও করেছে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষরা।এ বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৭৩৭৮ জন। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি বড় লাইব্রেরিও রয়েছে, যেখানে  ৫০ লাখেরও বেশি বই রয়েছে। এ সকল বই শিক্ষার্থীদের  জ্ঞান অর্জনে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। এ বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাথে।

প্রতিষ্ঠিত :১৯৯৩ সাল

প্রতিষ্ঠাতা :N/A

মূলমন্ত্র :মানুষকে শিক্ষা দেয় যা সে জানতো না

বিভাগ :২০টি

ঠিকানা :প্লট ১৬,ব্লক বি, আফতাব উদ্দিন আহমেদ রোড, বসুন্ধরা,ঢাকা, বাংলাদেশ।

২৩.৮১৫৫২২°উত্তর ৯০.৪২৭৫৭১°পূর্ব  ।

টেলিফোন নাম্বার :+880-9612939393 ফ্যা

ফ্যাক্স নাম্বার :+88-02-8431991

ইমেইল ঠিকানা :info@iub.edu.bd

ওয়েবসাইট :http://www.iub.edu.bd/

 আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

বাংলাদেশের সেরা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অন্যতম একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। এ বিশ্ববিদ্যালয়টির সংক্ষিপ্ত নাম AIUB। এই বিশ্ববিদ্যালয়টি ডাঃ আনোয়ারুল আবেদীন ১৯৯৪ সালে প্রতিষ্ঠা করেন।এ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড.সাইফুল ইসলাম। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৯৬০৭জন।

ন্যানো টেকনোলজি – বিজ্ঞানের এক অপার সম্ভাবনা

এ বিশ্ববিদ্যালয়টি একটি স্বাধীন সংস্থা যার নিজস্ব বোর্ড ও ট্রাস্ট্রেস রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে চারটি অনুষদ এবং বেশ কয়েকটি বিভাগ রয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি ২০০৬ সালে ইউনেস্কো থেকে আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের খ্যাতি অর্জন করেছে। এটি ইউজিসি, আইইবি এর সাথে।

 প্রতিষ্ঠিত :১৯৯৪ সাল 

 প্রতিষ্ঠাতা :ডাঃ আনোয়ারুল আবেদীন

 মূলমন্ত্র :যেখানে নেতৃত্ব করা হয়

 বিভাগ :১৯টি

 ঠিকানা :৪০৮ /১(পুরাতন কে এ ৬৬/১),কুড়াতলী,কুড়িল, খিলখেত-১২২৯,ঢাকা বাংলাদেশ।

২৩°৪৯′১৯.৪″উত্তর ৯০°২৫′৩৮.৮″পূর্ব  ।

 টেলিফোন নাম্বার : +88028414046-9

 ফ্যাক্স নাম্বার :+88028412255

 ইমেইল নাম্বার :info@aiub.edu

 ওয়েবসাইট :https://www.aiub.edu/

 ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

বাংলাদেশের গবেষণা কেন্দ্রিক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর মধ্যে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অন্যতম। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি উচ্চশিক্ষার জন্য জাতিসংঘের সাথে চুক্তি স্বাক্ষরিত করেছে। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি তার পড়াশোনার মান ও অন্যান্য কারিকুলাম এর জন্য বাংলাদেশের অন্যান্য বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর মধ্যে অষ্টম স্থান অধিকার করেছে। এটির সংক্ষিপ্ত নাম DIU। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি ২৪ শে জানুয়ারি ২০০২ সালে ১৯৯২ সালের বেসরকারি আইনের অধীনে প্রতিষ্ঠিত হয়।

আহমদ ছফা- কালের এক মহানায়ক এর গল্প।

 বিশ্ববিদ্যালয়টি ড্যাফোডিল স্মার্ট সিটি,বিরুলিয়া,সাভার, ঢাকাতে অবস্থিত। বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাতা ডঃ সবুর খান এবং উপাচার্য এম লুৎফর রহমান। এটির এ পর্যন্ত শিক্ষার্থী সংখ্যা ২১৭৫২ জন। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঁচটি অনুষদ ও ২৪ টি বিভাগ রয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ল্যাব ও লাইব্রেরির সুবিধাও রয়েছে।যা শিক্ষার্থীদের জ্ঞানার্জনে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। বাংলাদেশের যে ৫টি বিশ্ববিদ্যালয় ইন্টারন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন অব ইউনিভার্সিটির সদস্য,এই ৫টি সদস্যের মধ্যে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি একটি। এ বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাথে।

 প্রতিষ্ঠিত :২০০২ সাল

 প্রতিষ্ঠাতা :ডঃ সবুর খান

 মূলমন্ত্র :ভবিষ্যৎ তৈরীর জন্য একটি ল্যান্ডমার্ক

 বিভাগ :২৪ টি

 ঠিকানা :ড্যাফোডিল স্মার্ট সিটি, বিরুলিয়া, সাভার-১৩৪১, ঢাকা, বাংলাদেশ।

২৩.৮৭৬৫৮৯° উত্তর ৯০.৩২০৭৮৮°পূর্ব ।

 টেলিফোন নাম্বার :01833102806,01713493050

 ফ্যাক্স নাম্বার :+88-02-9138234-5,9116774

 ইমেইল ঠিকানা :counselor@daffodilvarsity.edu.bd

 ওয়েবসাইট :https://faculty.daffodilvarsity.edu.bd/

 ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

বাংলাদেশ সেরা ১০ টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি আর একটি বিশ্ববিদ্যালয়।এটির সংক্ষিপ্ত নাম UIU। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি ২০০৩ সালে ঢাকায় প্রতিষ্ঠিত হয়। এ বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য চৌধুরী মফিজুর রহমান। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর সংখ্যা 7000 এরও বেশি। অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো এ বিশ্ববিদ্যালয়েও ল্যাব, লাইব্রেরি ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা রয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাহায্যে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন বৃত্তি প্রদান করে থাকে। এ বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাথে।

 প্রতিষ্ঠিত :২০০৩ সাল

 চেয়ারম্যান :জনাব মোঃ হাসান মাহমুদ রাজা

 মূলমন্ত্র :শ্রেষ্ঠত্বের জন্য অনুসন্ধান

 বিভাগ : ৩টি

 ঠিকানা :ইউনাইটেড সিটি, মাদানী ইউনিট, বাড্ডা, ঢাকা-১২১২,বাংলাদেশ।

২৩ °৪৭′৫৩″উত্তর ৯০°২৬′৫৯″পূর্ব  ।

যোগাযোগের নাম্বার :+88-0-9604-848-848

ইমেইল ঠিকানা : info@uiu.ac.bd

ওয়েবসাইট :http://www.uiu.ac.bd/

 স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাতে অবস্থিত একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হলো স্ট্যামফোর্ড বিশ্ব বিদ্যালয়। এটির সংক্ষিপ্ত নাম stamford।এ বিশ্ববিদ্যালয়টি ২০০২ সালে স্থাপিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য অধ্যাপক মনিরুজ্জামান। এশিয়া,ইউরোপ,আফ্রিকা,অস্ট্রেলিয়া,আমেরিকায়,এখন পর্যন্ত ১৬০ টি ক্যাম্পাস রয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয়টি শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে নানারকম কাজ এখনও করে যাচ্ছে।বিশ্ববিদ্যালয়টি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত হওয়ায় আমাদের দেশের শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন দেশে তাদের  সার্টিফিকেট ব্যবহার করতে পারবে। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের এ পর্যন্ত শিক্ষার্থী সংখ্যা ১২০০০ জন। এ বিশ্ববিদ্যালয়টির পাঁচটি অনুষদ এবং ১৪ টি বিভাগ রয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাথে।

 প্রতিষ্ঠিত :২০০২ সাল

 বিভাগ :১৪টি

 ঠিকানা :৫১,সিদ্ধেশ্বরী রোড,রমনা,ঢাকা,বাংলাদেশ। 

 যোগাযোগের ঠিকানা :8153168-9,8156122-3,8155834

 ফ্যাক্স নাম্বার :+ 88029143531

 ইমেইল ঠিকানা :registrar@stamforduniversity.edu.bd

 ওয়েবসাইট :http://www.stamforduniversity.edu.bd/

উপসংহার

আমরা চেষ্টা করেছি ছোট্ট এই আর্টিকেলের মাধ্যমে বাংলাদেশের সেরা দশটি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে তুলে ধরার জন্য। এখানে উল্লেখিত সব কটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রথম ক্যাটাগরি অন্তর্ভুক্ত। এগুলো বাদেও বাংলাদেশে আরো শত শত প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। যেগুলো থেকে প্রতিবছর অনেক ছাত্রছাত্রী তাদের স্বপ্নের সাবজেক্ট থেকে গ্রাজুয়েশন করছেন। আপনি যদি একটি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে চান তাহলে নির্দ্বিধায় উপরে উল্লেখিত যেকোনো একটি ভার্সিটিতে আপনার প্রিয় সাবজেক্ট নিয়ে ভর্তি হয়ে যান। এরকম নিত্য নতুন আরো আর্টিকেল পেতে আমাদের সাথেই থাকুন। ধন্যবাদ। 

Previous articleবাংলাদেশের সেরা দশটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়
Next articleসেরা দশটি স্মার্টফোন- 2024 সালের সেরা স্মার্টফোন
Md. Zakaria Ahomed
I am zakaria. I am small blogger. Side by side I am writing for others blog also. Feel free to knock me if you need me.