ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি নিয়ে যত কথা আপনার জানা প্রয়োজন।

ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি নিয়ে যত কথা আপনার জানা প্রয়োজন।

আপনারা যারা ফরেক্স মার্কেটের সাথে জড়িত, নিয়মিত ফরেক্স ট্রেডিং করে থাকেন তাদের জন্য ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি কথাটি খুবই কমন। প্রত্যেক ফরেক্স ট্রেডারের একটি নির্দিষ্ট ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি  থাকে যেটা ফলো করে তিনি ট্রেড করে থাকেন। তার নিজস্ব ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি কিন্তু তিনি একদিনে খুঁজে পাননি। বছরের পর বছর তিনি ট্রায়াল এন্ড এরোর মেথডে নানা রকম পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে তিনি তার এই ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি গড়ে তুলেছেন। এটা তার জন্য সম্পদ।

ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি কি?

ট্রেডিং স্ট্রাটেজি মানে হল আপনার ট্রেডিং প্লান। আপনি কিভাবে ট্রেড করবেন, কখন ট্রেড নিবেন, মার্কেটের কোন পজিশনে আপনি ট্রেড নিবেন, আপনার মানি ম্যানেজমেন্ট কেমন হবে, কখন ট্রেড ক্লোজ করবেন, আপনার রিস্ক-রিওয়ার্ড রেশিও কেমন হবে ইত্যাদি সব কিছু একসাথে মিলেই ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি।

প্রত্যেক ট্রেডারের একটি নির্দিষ্ট ট্রেডিং স্ট্রাটেজি থাকে, একজন ট্রেডারের ট্রেডিং স্ট্রাটেজিতে কিছু বিষয় নির্দিষ্ট করা থাকে, যার মধ্যে অন্যতম হলঃ

  • এন্ট্রি বা এক্সিট পজিশন কোথায় হবে?
  • ট্রেডিং ভলিউম বা লট কত হবে?
  • টেক প্রফিট বা স্টপ লস কত পিপ হবে?
  • কখন ট্রেড করবেন আর কখন ট্রেড থেকে বিরত থাকবেন।
  • একসাথে সর্বচ্চো কতগুলো পেয়ার ট্রেড করবেন।

উপরের বিষয়গুলো একটু বিস্তারিত বলা যাক। আপনি যদি নতুন ট্রেডার হয়ে থাকেন, একটু ডিটেইল না বললে হয়ত সহজে বুঝতে পারবেন না। সেদিক বিবেচনা করে, বিস্তারিত আলোচনা করছি।

এন্ট্রি বা এক্সিট পজিশন কোথায় হবে?

একজন ট্রেডারের একটি নির্দিষ্ট ট্রেড সেট আপ থাকে। মার্কেট এর যে সেটআপ বা কন্ডিশন পেলে তিনি এন্ট্রি নিয়ে থাকেন। ধরেন, একজন ট্রেডার সবসময় আপট্রেন্ড মার্কেটে ডেইলি ক্যান্ডেলে 50MA এবং 100MA রেজিস্টেন্সে প্রাইস টাচ করলে সেল এন্ট্রি নিয়ে থাকেন। এটা তার সেল এন্ট্রি নেবার ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি ।

আবার তিনি ফিবোনাক্কি রিট্রেসমেন্ট ফলো করে ৩৮.২% রিট্রেসমেন্ট করলে ট্রেড ক্লোজ করে দেন মানে এক্সিট করে থাকেন। এটিই তার এক্সিট স্ট্রাটেজি ।

ফরেক্স বেসিক জানতে ক্লিক করুন এখানে।

আবার কেও আছেন MACD বা Moving average convergence divergence ব্যবহার করে এন্ট্রি নিয়ে থাকেন। এটা তার ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি ।

আবার কেও আছেন বোলিংগার ব্যান্ড, কেও পিভট পয়েন্ট ফলো করে ট্রেড করে থাকেন। যার যা স্ট্রাটেজি। সেটাই তিনি ফলো করেন।

ট্রেডিং ভলিউম বা লট কত হবে?

আপনার প্রতিটি এন্ট্রি বা পজিশন সমান লটের হওয়া উচিত। প্রথমেই আপনাকে এটা নির্ধারণ করে নিতে হবে। এটা অনেকটাই নির্ভর করে আপনার ট্রেডিং স্টাইল কেমন, কতটুকু রিস্ক নিতে চাচ্ছেন ইত্যাদি নানা বিষয়ের উপর।

ধরেন, আপনার ইনভেষ্টমেন্ট ১০০০ ডলার, আপনি সিদ্ধান্ত নিলেন আপনি যত এন্ট্রি নিবেন তা ০.০৫ লটের হবে। এটা আপনার ট্রেডিং স্ট্রাটেজির অংশ।

টেক প্রফিট বা স্টপ লস কত পিপ হবে?

আপনি কত পিপ প্রফিট নিবেন এবং আপনার যদি কোন এন্ট্রিতে লস হয় সেক্ষেত্রে স্টপ লস কত পিপ দিবেন। এটাও আপনার ট্রেডিং স্ট্রাটেজির অংশ। এটা নির্ভর করবে, আপনার রিস্ক রিওয়ার্ড রেশিও কত হবে তার উপর।

ধরেন, আপনি কোন এন্ট্রি নেবার পর সেখানে ৩০ পিপ স্টপ লস এবং ৬০ পিপ টেক প্রফিট দিলেন।  এটা আপনার ট্রেডিং স্ট্রাটেজির অংশ।

টেকনিক্যাল এনালাইসিস শিখতে চাইলে আপনি এখানে আসুন।

কখন ট্রেড করবেন আর কখন ট্রেড থেকে বিরত থাকবেন।

অনেক সময় এমন হয় মার্কেট খুব ভোলাটাইল, আবার অনেক সময় এমন হয় যে মার্কেট মুভ করেই না। যেমন নিউজের সময় মার্কেট খুব ভোলাটাইল থাকে, আবার ক্রিসমাসের ছুটির সময় ১৫ দিন এমন থাকে যে মার্কেট মোটেই মুভ করে না।

তো আপনি সিদ্ধান্ত নিলেন যে, নিউজ চলাকালীন সময় আপনি ট্রেড করবেন না, আবার ক্রিসমাসের সময় যেহেতু মার্কেটে কোন মুভমেন্ট নাই তাই ঐ সময় আপনি কোন ট্রেড করবেন না। এটাও আপনার ট্রেডিং স্ট্রাটেজির অংশ।

আবার অনেকেই সপ্তাহের শুরুতে যখন মার্কেট ওপেন হয় এবং ক্লোজিং এর সময় মানে যেদিন সপ্তাহ শেষ হয় ট্রেড করতে চান না। কারন এই দুই সময়ে নতুন ট্রেডারেরা বেশি ট্রেড করে এবং মার্কেট অনেক সময়ই সঠিক ডিরেকশন দেয় না। এটাও তার ট্রেডিং স্ট্রাটেজি।

অনেকে আবার ট্রেড করার জন্য নিউইয়র্ক সেসন আবার কেওবা ইউকে সেসন পছন্দ করে থাকেন, এটা তার ট্রেডিং স্ট্রাটেজির অংশ।

একসাথে সর্বচ্চো কতগুলো পেয়ার ট্রেড করবেন

অনেকে শুধুমাত্র একটি বা দুইটি পেয়ার নিয়ে ট্রেড করে থাকেন, যেমন EURUSD, আবার অনেকেই GBPUSD সহ আরও কিছু পেয়ার ট্রেড করেন। অনেকেই আছেন প্রায় সব পেয়ার ট্রেড করেন কিন্তু এক্সোটিক পেয়ার ট্রেড করেন না। কেও কেও আবার শুধুই গোল্ড নিয়েই পরে আছেন আবার কেওবা আছেন শুধু বিটকয়েন নিয়ে।

এটাও আসলে যার যার ট্রেডিং স্ট্রাটেজি ছাড়া আর কিছুই না। আপনাকে আপনার জন্য ট্রেডিং স্ট্রাটেজি ঠিক করে নিতে হবে। দেখতে হবে আপনি কোন পেয়ারে স্বাচ্ছন্দ বোধ করছেন।

বেশি পেয়ার নিয়ে একসাথে কাজ করাটাও অনেক ঝামেলার ব্যাপার। অল্প কারেন্সি নিয়ে ট্রেড করলেই আপনার জন্য সুবিধা হবে বলে আমি মনে করি। আপনি আপনার জন্য নির্দিষ্ট কারেন্সি খুঁজে বের করে নিন। নতুন হলে আমি বলব শুধু EURUSD ট্রেড করেন।

আজই একাউন্ট খুলুন ফরেক্স মার্কেটে। ট্রেড করুন।

ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি কেন প্রয়োজন

ফরেক্স মার্কেটে আপনার নিজস্ব একটি ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি অবশ্যই প্রয়োজন। একটি নির্দিষ্ট ট্রেডিং স্ট্রাটেজি থাকলে আপনার ট্রেডিং লাইফ স্মুথ হতে বাধ্য। একটি উদাহরণ দিয়ে ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি কেন আপনার ট্রেডিং এ প্রয়োজন তা বুঝিয়ে দিচ্ছি।

ধরেন, আপনি কোন একটি সিগন্যাল ফলো করে ট্রেড নিচ্ছেন বেশ কিছুদিন, এবং প্রতিদিন বেশ ভালই প্রফিট পাচ্ছিলেন। ০.০৫ লট করে ট্রেড নিচ্ছেন ভাল ফল পাচ্ছেন। আপনি ভাবলেন, প্রফিট যেহেতু হচ্ছে আজকে ০.২৫ লট ট্রেড নিয়ে নি। এবং সেদিন আপনি স্টপ লস খেয়ে গেলেন। আগের তিন দিন যা প্রফিট করেছিলেন আজকের একদিনে তার চেয়ে বেশি লস হয়ে গেল।

কিন্তু আপনি যদি প্রতিদিন একই লটে ট্রেড নিতেন, আপনার লস একই হারে হত। আপনি মোটের উপর লাভেই থাকতেন। এই উদাহরণ থেকে নিশ্চই  ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি মেনে চলার প্রয়োজনীয়তা বেশ বুঝতে পারছেন।

আপনার নিজস্ব ট্রেডিং স্ট্রাটেজি তৈরি করুন

ফরেক্স ট্রেডিং এ সফল হতে হলে আপনাকে অবশ্যই আপনার নিজস্ব ট্রেডিং স্ট্রাটেজি নির্ধারণ করে নিতে হবে। অন্যের তৈরি করা স্ট্রাটেজি নিয়ে আপনি বেশি দূর যেতেও পারবেন না।

তবে, মনে রাখবেন, ট্রেডিং স্ট্রাটেজি কখনও একদিনে তৈরি হয় না। এটা তৈরি হতেও সময় লাগে। আপনার ট্রেডিং এর বয়স যখন ২/১ বছর হয়ে যাবে আপনার ট্রেডিং স্ট্রাটেজি তৈরি হয়ে যাবে।

একটা যুতসই স্ট্রাটেজি তৈরি হয়ে যাবার পর আপনি সবসময় চেষ্টা করবেন সেই স্ট্রাটেজি  ফলো করে ট্রেড করার। আমরা অনেক সময়ই নিজের তৈরি করা স্ট্রাটেজি  নিজেই মেনে চলি না। ফলাফল হিসেবে লস করা ছাড়া তেমন কোন উপায় থাকে না।

ট্রেডিং স্ট্রাটেজি টেস্ট করুন

যেকোন ট্রেডিং স্ট্রাটেজি ফলো করার আগে আপনাকে অবশ্যই সেই স্ট্রাটেজি টেস্ট করে দেখা উচিত। কেও একজন বলল আর আপনি লাফিয়ে পরে সেই স্ট্রাটেজি ফলো করা শুরু করে দিবেন ব্যাপারটি তেমন নয়। আপনাকে প্রথমে সেই স্ট্রাটেজি ডেমো মার্কেটে টেস্ট করে নিতে হবে।

৩-৬ মাস স্ট্রাটেজি ডেমো মার্কেটে আপনি টেস্ট করে দেখুন। মার্কেটের সাথে সাথে স্ট্রাটেজি কেমন আচরণ করছে দেখে নিন। প্রয়োজনে আরও কিছু মোডিফিকেশন লাগলে সেটা করে ফেলুন। তারপর রিয়েল মার্কেটে স্ট্রাটেজি নিয়ে নামুন। তাহলে ভাল ফল পাবেন।

100% Guaranteed Winning Strategy জানতে এই লেখাটি পড়ে আসুন।

 


Leave a Reply