ইউটিউব থেকে মেমোরিতে ডাউনলোড করার উপায়!!

0
117

ভিডিও দেখার প্রতি যাদের নেশা রয়েছে তারা অবশ্যই ইউটিউবের সাথে পরিচিত। তবে এত পরিচিতির পরেও সমস্যা বাঁধে কিছু জায়গায় যেয়ে। তারই মধ্যে একটি হলো ইউটিউব থেকে মেমোরিতে ডাউনলোড করা নিয়ে।

অনেকেই পারেন না ভিডিওগুলোকে ইউটিউব থেকে মেমোরিতে ডাউনলোড করতে। আর তাই তাদের জন্য আমাদের আজকের পোস্ট। চলুন শুরু করা যাকঃ

ইউটিউব থেকে মেমোরিতে ডাউনলোড করার উপায়

ইউটিউব থেকে মেমোরিতে ভিডিও ডাউনলোড করার অনেক উপায়ই রয়েছে। আর তাদের কার্যপ্রণালিও বিভিন্ন। আজ আমরা তার কয়েকটি পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করবঃ

ইউটিউব গো এর মাধ্যমে মেমোরিতে ডাউনলোড

বহুল জনপ্রিয় এবং ব্যবহৃত পদ্ধতির মধ্যে একটি হলো ইউটিউব গো অ্যাপসটি।

যেকোন ভিডিও আপনি ইউটিউব থেকে সরাসরি মেমোরিতে ডাউনলোড করতে পারবেন ইউটিউব গো অ্যাপসটির মাধ্যমে। এর জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুনঃ

প্রথমেই আপনাকে আপনার ভিডিও স্টোরেজ হিসাবে মেমোরি কার্ড সিলেক্ট করে নিতে হবে। এর জন্য সিম্পলি নিচের ধাপগুলো দেখুন

  • শুরুতেই ডানদিকে কোণায় থাকা প্রোফাইল আইকনটিতে ট্যাপ করুন।
  • আইকনে ট্যাপ করলেই আপনার সামনে সেটিংস অপশন চলে আসবে।
  • সেটিংস অপশনে প্রবেশ করে, ভিডিও স্টোরেজ অপশনটিতে আপনার বিকল্প স্টোরেজ হিসাবে মেমোরি সিলেক্ট করুন।

আপনি যখন ভিডিও স্টোরেজ হিসাবে মেমোরি নির্বাচন করেছেন। আপনাকে এবার ডাউনলোড করতে হবে। তার জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুনঃ

  •  ইউটিউব গো অ্যাপটিতে যেয়ে আপনার পছন্দের ভিডিওটিতে চলে যান।
  • ভিডিওটিতে ট্যাপ করলে আপনার সামনে ডাউনলোড করার জন্য কিছু অপশন উন্মুক্ত হবে।
  • ভিডিও কোয়ালিটি ও বাদবাকি অপশনগুলো দেখে নিয়ে ডাউনলোড অপশনে ট্যাপ করুন।

খুব সহজেই আপনি ইউটিউব থেকে মেমোরিতে ডাউনলোড করতে পারবেন খুব সহজেই, ইউটিউব গো অ্যাপসটির মাধ্যমে।

তবে এখানে কিছু বিষয় বলে রাখা ভালো, ইউটিউব গো অ্যাপসটির মাধ্যমে ডাউনলোডকৃত ভিডিও এর এক্সটেনশন হলো *.*yt যার কারণে এটা শুধুই ইউটিউবে প্লে হবে এবং এক ফোন থেকে অন্য ফোনে মেমোরি ট্রান্সফার করলেও ভিডিও ট্রান্সফার হবে না।

থার্ডপার্টি অ্যাপসের মাধ্যমে ইউটিউব থেকে ডাউনলোড

মোবাইলে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা বাড়তি পেতে অনেকেই হয়তো থার্ডপার্টি অ্যাপস ব্যবহার করেন। আর তার জের ধরেই ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার জন্য অনেকেই এই থার্ডপার্টি অ্যাপসকে প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। তবে থার্ডপার্টি অ্যাপসের মাধ্যমে ইউটিউব থেকে ডাউনলোড করার আগে আপনাকে জেনে নিতে হবে কি কি থার্ডপার্টি অ্যাপস রয়েছে।

বর্তমানে বহুল জনপ্রিয় থার্ডপার্টি অ্যাপসের মধ্যে রয়েছে যেমনঃ Snaptube, Vidmate, Videoder, Tubemate ইত্যাদি। তন্মেধ্য স্নাপটিউব (Snaptube) অ্যাপটিকে রিকমেন্ড করব। যদিও এর কিছু খারাপ দিক রয়েছে যা একটু নিচে আলোচনা করা হবে।

স্নাপটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার উপায়

স্নাপটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার জন্য আপনি নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন

  • প্রথমেই ইউটিউবে যেই ভিডিওটি দেখছেন, তার শেয়ার বাটনে ক্লিক করুন।
  • এরপর, একটু স্ক্রল করে, ডাউনলোড With Snaptube অপশনটিতে ক্লিক করুন।আপনার সামনে কিছু অপশন উন্মুক্ত হবে যার মধ্যে থাকবে ভিডিও কোয়ালিটি ও অডিও অপশন।
  • সেখান থেকে সিলেক্ট করে, ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করুন।
  • ডাউনলোড হয়ে যাওয়ার পর, আপনার স্নাপটিউব ফোল্ডারে চলে যান, সেখান থেকে ডাউনলোড করা ফাইলগুলো সিলেক্ট করে, কপি করুন এবং মেমোরিতে পেস্ট করুন।

এভাবেই স্নাপটিউবের মাধ্যমে আপনি ইউটিউব থেকে মেমোরিতে খুব সহজেই ডাউনলোড করতে পারবেন।

স্নাপটিউবের মাধ্যমে ডাউনলোড করার সুবিধা ও অসুবিধাঃ

স্নাপটিউবের মাধ্যমে ডাউনলোড করার সুবিধা হচ্ছে

  • ডাউনলোড করা ভিডিওগুলো আপনার মেমোরিতেই থাকবে।
  • যেকোন ভিডিও প্লেয়ার দ্বারাই প্লে হবে। মেমোরি ট্রান্সফার করলে ভিডিও ট্রান্সফার হবে।

তবে স্নাপটিউব এর যে ক্ষতিকর দিকটি তা হলো এটি থার্ডপার্টি অ্যাপস তাই আপনার ডিজিটাল ইনফরমেশন চুরি হয়ে যাওয়ার আশংকা থাকে। যদিও তা হতে দেখা যায় না।

দ্বিতীয় যে বিষয়টি তা হলো এখানে ফ্রি এপ্লিকেশন হবার কারনে অ্যাড ভেসে উঠে মাঝে মাঝে, যা আপনার রুচিসম্মত নাও হতে পারে। তাই এড়িয়ে চলার আহ্বানও জানাচ্ছি ।

উপরের যে অ্যাপসগুলো রয়েছে, সেই অ্যাপস এর বিকল্প হিসাবে আমি আপনাকে রিকমেন্ড করতে পারি, সেফ ফ্রম নেট ওয়েবসাইটটি। যেখান থেকে শুধুমাত্র লিংক কপি করে ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। আর ডাউনলোডকৃত ভিডিওকে ইউটিউব থেকে মেমোরিতে ট্রান্সফার করা যায় খুব সহজেই।

আর পিসি ইউজারদের জন্য রয়েছে, ফ্রি ডাউনলোড ম্যানেজার।

আশা করি উপরোক্ত টিপসগুলো আপনার কাজে লাগবে। ব্লগার রাগিব হাসানের এই ব্লগ থেকে আপনি ইউটিউব থেকে ডাউনলোডের আরও অনেক উপায় পেয়ে যাবেন। আশা করি ভাল ও আপনার কাজে লাগবে।

Previous articleগেমিং ল্যাপটপ নিয়ে জানুন
Next articleকম্পিউটার ভাইরাস কি ? বাঁচবেন যেভাবে।